Sunday, May 19, 2024

পাগলা শিয়ালের কামড়ে একই পরিবারের তিনজন আহত

মোজাম্মেল হক লালটু, গোয়ালন্দ: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড হারেজ মিয়ার পাড়ায় এক বাড়িতে পাগলা শিয়াল ঢুকে হামলা চালিয়ে করে একই পরিবারের তিনজনকে কামড়ে গুরুতর আহত করেছে।

আহতরা হলেন হাজেরা বেগম (৭২) তার ছেলে হানিফ শেখ (৪৫) ও হানিফের স্ত্রীর রাশেদা বেগম (৩৫)। আহতরা স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে চিকিৎসা নিয়েছে।পরে অবশ্য স্থানীয়রা শিয়ালটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে।

সোমবার ভোর সারে ৫ টার দিকে হারেজ মিয়ার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গেলে আহতরা ও প্রতিবেশী শাজাহান শেখ, মজিবর শেখ ও রাসেল শেখসহ স্থানীয়রা জানান, হাজেরা বেগম প্রতিদিনের ন্যায় ঘটনার দিনও রান্না ঘরে বসে তরকারি কাটছিলেন। এমতাবস্থায় হঠাৎ ওই শিয়ালটি রান্না ঘরে ঢুকে তাকে ঝাফটে ধরে কামড়াতে থাকে। তার চিৎকারে ছেলের বউ রাশেদা এগিয়ে এলে শিয়ালটি তাকেও কামড়াতে থাকে। তাদের ডাক চিৎকারে হানিফ শেখ ঘর থেকে বেড়িয়ে তাদের কাছে যাওয়া মাত্রই শিয়ালটি তাকেও কামড়ে ধরে। এরপর তাদের ডাক চিৎকার ও চেচামেচিতে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও প্রতিবেশীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে এগিয়ে এলে শিয়ালটি পালিয়ে না গিয়ে তাদের দিকে ছুটে আসে কামড় দিতে। পরে তারা পিটিয়ে শিয়ালটিকে মেরে তারা রক্ষা পায়।

এ বিষয়ে আহত শাজাহান শেখসহ বলেন, এই এলাকায় শিয়ালের উৎপাদ খুবী বেড়ে গেছে। প্রতিদিনই ঝাঁক বেঁধে শিয়াল আমাদের এলাকায় ঘোরাফেরা করে। আগে কুকুর দেখলে শিয়াল পালিয় যেতো। এখন সংঘবদ্ধ শিয়ালের ভয়ে কুকুর পালিয়ে যায়। তবে এই শিয়ালটি খেপে ছিলো। যার কারনে বাড়িতে এসে রান্না ঘরে ঢুকে মানুষ কে কামড়িয়েছে।

গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ফারসিম তারান্নুম হক বলেন, কুকুর, বিড়াল বা শিয়ালে কামড়ালে তাদেরকে হাসপালে পাঠিয়ে দিন। তাদের শরীরে প্রতিশেধক ইনজেকশন পুশ করতে হবে। ‘

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here