Thursday, June 13, 2024

বালিয়াকান্দিতে ব্যবসায়ীকে হাতুরী পেটা বাড়ী ঘর ভাংচুর

এস .এম রাহাত হোসেন ফারুক(বালিয়াকান্দি) : রাজবাড়ীর বালিয়েকান্দিতে নির্বাচনোত্তর ব্যবসায়ীকে হাতুরী পেটা, মারধর, বাড়ী ঘর ভাংচুর, হুমকিসহ সহিংতার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল মধুগাড়া গ্রামের রামপদ মন্ডলের ছেলে জঙ্গল বাজারের মেশিনারিজ পার্টস ব্যবসায়ী রমেন্দ্রনাথ মন্ডল (৫৩) কে তার দোকানের মধ্যে হাতুরী পেটা করেছে। তাকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রমেন্দ্রনাথ মন্ডল বলেন, তার দোকানে জঙ্গল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নৃপেন্দ্রনাথ বিশ্বাস প্রতিদিন বসে পেপার পড়েন। তিনি ঈগল প্রতিকের নির্বাচন করায় ও আমার দোকানে বসার কারণে তাকে হুমকি-ধামকি দেয়। হিল্লোল বসু, সুকচাঁদ সহ ১০-১২জন নৌকার সমর্থকরা দোকানে ঢুকে এলোপাথারী ভাবে হাতুরী পেটা ও মারধর করে। পরে থানা পুলিশ এসে উদ্ধার করে। লোকজন তাকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করে। এখন পর্যন্ত থানায় কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

অপর দিকে, কালুখালী উপজেলার মাঝবাড়ী ইউনিয়নের কাউন্নাইর গ্রামের টিপুর বাড়ীর মালামাল ভাংচুর করাসহ হুমকি দিয়েছে এবং বাড়ী আসলে দেখে নেবে, মাঝবাড়ী গ্রামের শাকিলের বাড়ী ভাংচুর, দয়রামপুর গ্রামের জাহাঙ্গীরকে মারধোর করে। এ ঘটনায় পুলিশ সবুজ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করে। মাঝবাড়ী গ্রামের পোস্ট মাস্টার বজলুকে প্রকাশ্যে বাজারে লাঞ্ছিত করে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। বেতবাড়ীয়া গ্রামের মোশারফকে মারধর করে। মাঝবাড়ী সমসের মার্কেটে কোমরপুর গ্রামের লিটনকে মারধর করে। মাঝবাড়ী গ্রামের ছাত্তারের বাড়ীর উপর গিয়ে চাঁদা চেয়ে হুমকি দিয়েছে। মোহন মল্লিকের কাছে চাঁদা দাবী করেছে।

কালুখালী থানার ওসি মোঃ আলমগীর হোসাইন বলেন, একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা দায়ের করা হয়। একজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়। তবে অন্যরা কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি।
বালিয়াকান্দি থানার ওসি মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন, খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে ঘটনাস্থলে যাই। সত্যতা পাওয়ায় থানায় অভিযোগ দায়ের করতে বলা হয়েছে। আহত ব্যবসায়ীর পক্ষে কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

 

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here