Tuesday, April 23, 2024

কবিরাজ ও তার সহযোগী’র যাবজ্জীবন

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ চিকিৎসার কথা বলে ভয় দেখিয়ে ৩৮ বছর বয়সী এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের দায়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের রায়নগর গ্রামের মান্নান গাইন ওরফে মান্নান কবিরাজ (৫২) এবং তার সহযোগী চর বাগমারা গ্রামের ফারুক বিশ্বাস (৩৫)কে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
২৫শে জুন (রোববার) রাজবাড়ীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. সাব্বির ফয়েজ এ রায় দেন।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ দুই সন্তানের মা জানান, তিনি শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যথাজনিত রোগে ভুগছিলেন। তাই সুস্থ হতে মান্নান কবিরাজের কাছ থেকে ওষুধ সেবন করছিলেন তিনি। ২০২১ সালের ১৩ এপ্রিল সাড়ে ১০টার দিকে কবিরাজি চিকিৎসার কথা বলে তাকে একটি মাঠে নিয়ে যান মান্নান কবিরাজ ও তার সহযোগী ফারুক বিশ্বাস। পরে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে তারা।

‘রাজবাড়ী সদর থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে একই বছরের ১৫ এপ্রিল রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা করেন। মামলার মাত্র চার ঘণ্টার মধ্যে আসামিদের গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়। দীর্ঘ সাক্ষ্য-প্রমাণ গ্রহণ শেষে আদালত মান্নান কবিরাজ ও ফারুক বিশ্বাসকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন। অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।’

রাজবাড়ীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পেশকার আব্দুস সাত্তার বলেন, উভয় আসামির উপস্থিতিতেই এই রায় দিয়েছেন আদালত ।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here