Tuesday, April 23, 2024

চাঁদার টাকা আনতে গিয়ে ৮ মামলার আসামী গণপিটুনীর শিকার

এস,এম রাহাত হোসেন ফারুক: রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে চাঁদার টাকা আনতে বসত বাড়ীতে প্রবেশ করে ২জনকে মারধর করায় গণপিটুনীর শিকার হয়েছে ৮ মামলার পলাতক আসামী আল আমিন মোল্যা (৩০)। সে বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বারমল্লিকা গ্রামের আবুল মোল্যার ছেলে। এ ঘটনায় গৃহকর্তা আব্দুর রাজ্জাক ও তার ভাই ইসহাককে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

(৩ জুলাই)সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের বারমল্লিকা কৃষ্ণপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, গত ১২ জুন বিকেল ৩টার দিকে বাড়ী থেকে আল আমিন মোল্যার নেতৃত্বে ১০-১২জন তুলে নিয়ে বারমল্লিকা একটি মেহগনি বাগানের মধ্যে আটকে রাখে। সেখানে মারধর করে তার স্বর্ণের চেইন হারানোর জন্য ৩২ হাজার টাকা দাবী করে। পরে কাছে থাকা নগদ ৪ হাজার ৪শত টাকা কেড়ে নেয়। শুক্রবারের মধ্যে আরও ২০ হাজার টাকা দাবী করে। পরে সোমবার তাকে ফোন করে বাড়ীতে টাকা নিতে আসতে বললে আল আমিন মোল্যা, তার ভাই আরিফ, আলমগীর, সহযোগী মোস্তফা, লিটন, ফরহাদ, ইলিয়াছ সহ ৫-৬জন বাড়ীতে প্রবেশ করে। টাকার জন্য ইসহাকের ঘাড়ে চাপাতি ধরে রাখে। টাকা দিতে দেরী হওয়ায় ইসহাককে কুপিয়ে জখম করে। আমাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সবাই পালিয়ে গেলেও আল আমিন মোল্যা ধরা পড়ে। লোকজন তাকে গণপিটুনী দেয়। ডিবি পুলিশ ও থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা এসে আহত দুই ভাই ও আল আমিনকে উদ্ধার করে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করেন। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার বালিয়াকান্দি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
রাজবাড়ী জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুজ্জামান খান বলেন, মোটরসাইকেল চুরির মামলা সহ ৮ মামলার আসামী আল আমিন মোল্যা গণপিটুনীর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আটক করে বালিয়াকান্দি থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে মঙ্গলবার মামলা দায়ের করেছেন।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here