Monday, June 24, 2024

পদ্মায় ইলিশের আকাল

মোজাম্মেল হক লালটু: ইলিশ হলো মাছের রাজা, ইলিশ হলো রানী, পদ্মা নদীর ইলিশ মানে জিভের ডগায় পানি। গোয়ালন্দে পদ্মার ইলিশের ইতিহাস অতি দীর্ঘ। যেখানে জাল ফেললে এক সময় ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ মাছ ধরা পড়তো। এখন সেই পদ্মা নদীর গভীরতা না থাকার কারণে আগের মতো ইলিশ ধরা পড়ছে না বলে অভিযোগ মৎস্যজীবীদের।

এই পদ্মার ইলিশ মাছ শুধু বাংলাদেশেই নয় ভারত পাকিস্তানেও সমান জনপ্রিয়।এই পদ্মার ইলিশ ভারতের তামিল নাড়ুতে পিউলাস বা পুলাস সিন্ধুতে পালুমচি আর গুজরাটে মুডেন বা পেল্ডা নামে পরিচিত।

সরেজমিন ঘুরে জানা গেছে, উপজেলা বিভিন্ন এলাকার মৎস্যজীবীদের ক্ষোভ সারাদিন নদীতে জাল ফেললেও কোন ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু এসময় পদ্মা নদীতে জাল ফেলা মানেই সুদিন মৎস্যজীবীদের। যে সময় বাংলাদেশের সাগরে ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে রুপালী ইলিশ। সে সময় পদ্মা দেখা যাচ্ছে অন্য চিত্র পদ্মা যমুনার মিলনস্থলে মিলছে না কোন ইলিশ। পদ্মা থেকে মা ইলিশ ও জাটকা ইলিশ নিধন করাসহ নদীর গভীরতা না থাকায় পদ্না নদীতে দেখা দিয়েছে ইলিশ মাছের আকাল। নদীর গভীরতা না থাকায় নেই আগের মত স্রোত তার পর নদীর মাঝে মাঝে জেগে উঠেছে বড় বড় চর। নদীতে ইলিশ মাছ বৃদ্ধি করতে হলো নদীর মাঝে ড্রেজিং করে নদী গভীরতা বাড়াতে হবে। সাধারনত ইলিশ মাছ গভীর পানির মাছ। নদীতে ইলিশ মাছের প্রজন্ম বাড়াতে হলো ড্রেজিংয়ের বিকল্প নেই।

পদ্মা ট্রলার চালক গফুর মোল্লা বলেন, মাছে ভাতে বাঙালি এই প্রবাদটি আর নাই। তার বাস্তবতা হচ্ছে ইলিশ মাছের চাহিদা পদ্মা নদী মেটাতে পারছে না। নদীর গভীরতা কমে গেছে নদীতে স্রোত নেই বললেই চলে।তার পর নদীর মাঝে মাঝে চর জেগেছে। বড় কারণ হলো প্রতি বছরের অবাধে জাটকা ও মা ইলিশ ধরায় এখন নদীতে ইলিশ মাছের আকাল দেখা দিয়েছে।

জেলে লিটন শেখ বলেন, আমি এই পদ্মা নদীতে জাল ফেলে মাছ ধরি পাঁচ বছর হয়ে গেছে।এ বছর দেখছি নদীতে ইলিশ মাছের খুবী আকাল তার পর নদীর গভীরতা নেই। সারা দিন নদীতে জাল বেয়ে ১থেকে ২ কেজি জাটকা ইলিশ পাওয়া যায়। বড় কোন ইলিশ নদীতে পাওয়া যায় না। নদীর মাঝে মাঝে বড় বড় চর পড়েছে সেই কারনে নদীতে কোন স্রোত নেই। নদীতে স্রোত বা গভীরতা না থাকলে সে নদীতে ইলিশ মাছ থাকবে কি করে। নদীকে বাঁচাতে হলে নদীতে ড্রেজিং করতে হবে।

আরেক জেলে শহর মোল্লা বলেন, আমি প্রায় ৭বছর ধরে পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ধরি। এ বছর নদীতে তেমন ইলিশ মাছ নেই। কারন নদীতে স্রোত নেই তার পর নদী মাঝে বড় বড় চর জেগেছে। নদীতে পানির গভীরতা নেই। গভীর পানি ছাড়া ইলিশ মাছ চলাচল করে না। সারা বছর নদীতে ইলিশ মাছ ধরে বিক্রি করে সংসার চালাই। নদীতে শুধু ছোট জাটকা ইলিশ তাও সারা দিন জাল বেড়ে ২ থেকে ৩ কেজি মত হয়।তাহা বিক্রি করে কোন রকম সংসার চলছে নদী বাঁচাতে হলে নদীতে ড্রেজিং করে পানির গভীরতা তৈরি করতে হবে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শাহরিয়ার কবির সাবু বলেন, পদ্মায় ইলিশের আকাল চলছে। নদীতে কারেন্ট নেই পানির গভীরতা নেই। ইলিশ মাছ গভীর পানির মাছ । বড় ইলিশ মাছ বাঘাইড় মাছ আইড় মাছ রুই মাছ চলাচলের জন্য নদীতে ২০ থেকে ৩০ ফুট পানি থাকা দরকার। সরকারি ভাবে পদক্ষেপ নিয়ে নদীতে ড্রেজিং করে নদীর গভীরতা বাড়াতে পারে।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here