Monday, March 4, 2024

পাংশায় কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা

উজ্জল হোসেন, পাংশা: রাজবাড়ীর পাংশায় কৃষকের ধান কেটে দিলেন উপজেলা ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার (৯মে) সকাল ৮ টার দিকে পাংশা পৌর শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মৈশালা মৈত্রডাঙ্গী মাঠ থেকে কৃষকের পাঁকা ধান কাটেন তারা।

জানা যায়, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম সরদারের উদ্যোগে উপজেলার ছাত্রলীগের একাধিক কর্মী ও সহযোগীদের সাথে নিয়ে কৃষকের ধান কাটেন। এ সময় মৈত্রডাঙ্গী গ্রামের মো. সিরাজ শেখের ৭২ ও মো. মিলন শেখের ১০ শতাংশ জমির পাঁকা ধান কেটে দেন তারা।

মো. সিরাজ শেখ বলেন, আমি এই এলাকার একজন দরিদ্র কৃষক। আজ আমার ৭২ শতাংশ জমির পাঁকা ধান কেটে দিয়েছে উপজেলা ছাত্রলীগ। ধান কেটে মাথায় করে নিয়ে মাড়াই করার স্থানে পৌছে দিয়েছে। এই ধান কাটতে আমার প্রায় ৫-৬ হাজার টাকা খরচ হতো। উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজার উদ্যোগে এই ধান কাটা হয়েছে। আমার খুব উপকার হয়েছে। উপজেলা ছাত্রলীগের প্রতি তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ছাত্রলীগের ধান কাটা দেখে স্থানীয় কয়েকজন কৃষক এগিয়ে আসেন। এ সময় স্থানীয় ফিরোজ মল্লিক নামের একজন কৃষক বলেন, এরা একটি ভালো কাজ করেছে, বেটার কাজ করেছে। আমি খুব খুশি হয়েছি।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম সরদার (রেজা) বলেন, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ও আমাদের রাজনৈতিক অভিভাবক রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. জিল্লুল হাকিমের নির্দেশনায় এই ধান কাটার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। উপজেলা ছাত্রলীগকর্মী ও আমাদের সহযোগীদের সাথে নিয়ে ধান কাটা শুরু করেছি। আজ মৈত্রডাঙ্গী মাঠের দরিদ্র দুই কৃষকের ৮২ শতাংশ জমির পাঁকা ধান কেটে দিয়েছি। এই ধান কাটার কাজ অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রতন কুমার ঘোষ বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। এ মৌসুমে ১ হাজার ৭৫০ হেক্টর জমিতে ধান চাষ করেছে কৃষক। এর মধ্যে অনেক দরিদ্র কৃষক রয়েছে। উপজেলা ছাত্রলীগ একটি সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাঁদের এই ধান কাটা অব্যাহত থাকলে পাংশার দরিদ্র কৃষক উপকৃত হবে। উপজেলা ছাত্রলীগের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান তিনি।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here