Tuesday, February 27, 2024

পাংশায় নিখোঁজের ৩দিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার

উজ্জল হোসেন, পাংশা: পাংশায় নিখোঁজের তিন দিন পর কাজল মিয়া(১৭) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২ টার দিকে উপজেলার যশাই ইউনিয়নের খলিল মোড় ভাই ভাই স্টোর নামের একটি দোকানের নিচ থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করে পাংশা মডেল থানা পুলিশ। কাজল মিয়া ইউনিয়নের চরগুপীনাথপুর গ্রামের মনিরুল মিয়ার ছেলে। কাজল মিয়া মাছপাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্র। ভাই ভাই স্টোরের মালিক মোঃ মাসুদ মিয়া নিহত কাজল মিয়ার চাচা ।

সরেজমিনে গেলে নিহত কাজলের পিতা মনিরুল মিয়া জানান, গত সোমবার সন্ধ্যায় কাজল মিয়া তার বন্ধু মাহবুর রহমান নাহিদের সাথে বাড়ি থেকে বের হয়। তার পর থেকে আর বািড়তে ফিরে আসেনি। মাহবুর রহমান নাহিদ প্রতিবেশী রাজ্জাক মন্ডলের ছেলে। কাজলের পিতার অভিযোগ কাজল বাড়িতে ফিরে আসেনি। তিনি আরোও বলেন, অনেক খোঁজাখুঁজি করে কাজলকে না পেলেও কাজলের কানটুপি, গায়ের জামা, পায়ের স্যান্ডেল, একটি কোদাল ও একটি সাবল পাওয়া যায় ভাই ভাই স্টোরের উত্তর পাশ্বে। এসব দেখে কাজলের পিতার সন্দেহ হলে বৃহস্পতিবার পাংশা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে আসেন। মাহবুর রহমান নাহিদ বলেন, সন্ধ্যার দিকে আমরা এক সাথে খলিল মোড়ে যাই। রাত সাড়ে ১১ টার দিকে দুই জন এক সাথে মোড় থেকে বাড়ি চলে আসে। সকালে কাজলের বাড়ির লোকজন জানায় কাজল রাতে বাড়ি ফেরে নাই। ভাই ভাই স্টোরের মালিক মোঃ মাসুদ মিয়া বলেন, নিখোঁজের পর থেকে কাজলকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেছি কোথাও পাইনি। বৃহস্পতিবার দোকানের উত্তর পাশে মাছির আনাগোনা পাই। পরে দোকানের নিচ থেকে বালু অপসারণ করলে দুটি পা দেখতে পাই। তখন পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে দোকানের ফ্লোর ভেঙ্গে মরদেহ উদ্ধার করে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, রাজবাড়ী জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) সুমন কুমার সাহা। তিনি বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দোকানের ফ্লোর ভেঙ্গে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে দোকানের উত্তর পাশ দিয়ে সিধ কেটে দোকানে চুরি করতে গিয়ে বালু চাপায় মৃত্য হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্য মামলা হবে। ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ রাজবাড়ী মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here