Tuesday, February 27, 2024

প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে ক্রীড়া অনুষ্ঠানকে ঘিরে সংঘর্ষ,আহত ১

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী জেলা, বালিয়াকান্দি উপজেলা, বহরপুর ইউনিয়নের পাকালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে রমজান মিয়া নামে এক অভিভাবক গুরুত্বর আহত হয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

জানা যায়, সোমবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের পাকালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয় বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রথম দিনের ক্রীড়া অনুষ্ঠান চলাকালে বিদ‍্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ুয়া সামি ফকিরের পিতা মোঃ মিরাজুল ফকির ক্রীড়া প্রতিযোগিতার মাঠে এসে খেলা বন্ধ করার নির্দেশ দেয়। খেলা বন্ধ না করায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে মাইকের তার ছিড়ে ফেলার জন‍্য টানাহেচরা করতে থাকে। এসময় বিদ‍্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ শফিকুল ইসলাম মিয়া কোন ঝামেলা না করে অনুষ্ঠান পরিচালনায় সহোযোগিতার পরামর্শ দেন । ক্ষিপ্ত মিরাজুল ফকির বাড়ীতে গিয়ে ধারালো ছ‍্যান এনে রাস্তায় থাকা সভাপতির বড় ভাই মোঃ রমজান মিয়ার মাথার কোপ দিয়ে রক্তাক্ত করে। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে মিরাজুল পালিয়ে যায়। গুরুত্বর আহত অবস্থান মোঃ রমজান মিয়াকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বিদ‍্যালয়ের সহকারী শিক্ষকগণ বলেন, আমরা সকাল সাড়ে ৯টা থেকে নির্ধারিত নিয়মানুযায়ী খেলাধুলি শুরু করি। হঠাৎই আমার তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্র সামি ফকিরের বাবা এসে উচ্চস্বরে খেলা বন্ধ করার জন‍্য বলে। তাকে বোঝানো হলেও তিনি গালিগালাজ শুরু করে এবং মাইকের তার ধরে টানাহেচরা করতে থাকে। সভাপতি এসে তাৎক্ষণিক মিটকুট করলেও মিরাজুল ফকির বাড়ী থেকে ধারালো ছ‍্যান এনে মোঃ রমজান মিয়াকে কুপিয়ে আহত করে। স্থাণীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।’ ঘটনা তদন্তে বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

প্রধান শিক্ষক মধুসুদন সরকার বলেন, এই ঘটানা হওয়ার সাথে সাথে আমি অনুষ্ঠান বন্ধ করে দিয়েছি। আমি সভাপতি ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার সাথে আলোচনা করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করবো। পরবর্তীতে আলোচনা সাপেক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ শফিকুল ইসলাম মিয়া বলেন, আমি সমস‍্যার প্রাথমিক সমাধান করে দেওয়ার পরও মিরাজুল ফকির এমন কাজ করবে আমি ভাবতে পারিনি। আমার বড় ভাই রমজান মিয়াকে রাজবাড়ী হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। বিদ‍্যালয়ের পক্ষ থেকে থানায় অভিযোগ করা হচ্ছে। আমরা পারিবারিকভাবে বসে আলোচনা করে আইনের আশ্রয় গ্রহন করবো।

 

rj/rana/rjdesk

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here