Saturday, June 15, 2024

বালিয়াকান্দিতে পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান করে টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট

বালিয়াকান্দি সংবাদদাতা: রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে পরিবারের সবাইকে অজ্ঞান ও মারধোর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে নিয়ে গেছে দুবৃত্তরা। ৬জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ও ৬জন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের রায়পুর গ্রামের নিমাই চাকী, পুতুল চাকী, কার্তিক চাকী, কল্যাণী চাকী, তৃপ্তি রানী, বিপুল চাকী। চিকিৎসাধীন আছে বরিশা চাকী, বন্ধন চাকী, স্কুল শিক্ষিকা ইতি রানী দে সহ ৬ সদস্য। তবে বরিশা চাকী, বিপুল চাকী ও ইতি রানী দে কে মারধোর করা হয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিপুল চাকী বলেন, আমরা রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। সোমবার রাত ১ টার দিকে বাড়ীর ভবনের গ্রীল কেটে ৭-৮জন ভিতরে ঢুকে দেশীয় ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ও শাড়ী কাপড় কেটে সবার মুখ বেধে রেখে ঘরে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৫ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। এসময় তারা আমাকে, মেয়ে বরিশা ও শিক্ষক ইতি রানী দে কে মারধোর করে। পাশের বাড়ীর লোকজনও অজ্ঞান অবস্থায় পাওয়া যায়। এতে ধারনা করা হচ্ছে দুবৃত্তরা টিউবয়েলের মধ্যে চেতনানাশক দিয়ে বাড়ীর সবাইকে অজ্ঞান করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়। মঙ্গলবার (২ আগষ্ট) সকালে তাদেরকে বালিয়াকান্দি হাসপাতালে ভর্তি করে প্রতিবেশীরা।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি আসাদুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পরিবারের সবাই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সুস্থ হয়ে থানায় অভিযোগ দায়েরের কথা বলেছি। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here