Saturday, July 13, 2024

মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে পিতা গ্রেপ্তার

মোজাম্মেল হক লালটু,গোয়ালন্দ: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় পাষণ্ড পিতা তার নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করার দায়ে তাকে আটক করছে থানা পুলিশ।

আটককৃত আসামী হলো উপজেলার দৌলতদিয়া ৯ নং ওয়ার্ডের রহমান ফকির পাড়ার পাকু মেম্বারের ছেলে কালাম ফকির(৫০)।

বৃহ:প্রতিবার (৮ জুন) বিকেলে এক এজাহারের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ।
এজাহার সূত্রে জানাগেছে, আমার পিতা অনুমান ৭/৮ বছর পূবে আমার মাকে বিয়ে করে অন্যত্র চলে যায়।এরপর আমার পিতা আবার ভায়লা নামে আরেক জন মহিলাকে বিয়ে করে আমাদের বসত বাড়ী সংলগ্ন আমাদের একটি মুদি দোকান রয়েছে। সেই দোকানের কাজে আমার পিতাও সৎ মা’কে সাহায্য করি। ৭ জুন রাত অনুমান১২ টার ১৫ মিনিটের সময় আমি ও আমার সৎ মা দোকান বন্ধ করে খাবার খেয়ে শুয়ে পড়ি।১২ টা ৪৫ মিনিটের সময় বিদ্যুৎ চলে যায়।বিদ্যুৎ চলে যাওয়াতে অন্ধকারে ভয় পাই বিধায় আমি আমার পিতা ও সৎ মায়ের নিকট তাদের রুমের মেঝোতে গিয়ে শুয়ে পড়ি। তখন রাত ১টা বাজে সে সময় আমার পিতা বাহিরে গিয়ে কিছুক্ষণ পরে ফিরে এসে আমার বুকে ও তলপেটে হাত দেয়। সে সময় আমি চিৎকার করলে আমার পিতা তখন আমাকে তার খাটের উপর আমার ছোট ভাইয়ের কাছে শুইতে বলে। আর আমার সৎ মা আর বাবা নিচে শুয়ে পড়ে। আর আমি খাটের উপরে শুয়ে ঘুমিয়ে গেছি। তখন আমার মুখ চেপে ধরে এবং কোন প্রকার শব্দ করলে তোকে খুন করবো বলে হুমকি দিয়ে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর করে ধর্ষণ করে।ইতি পূর্বে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে একাধিকবার ধর্ষণ করছে।

এবিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, সন্ধা সাড়ে ৬ টার দিকে হামিদ মৃধার হাট এলাকায় থেকে খরব পেয়েছি যে একজন পাষণ্ড পিতা তার মেয়েকে ধর্ষণ করছে। সংবাদ পেয়ে আমি পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনা যাচাই বাছাই করে মেয়েটিকে উদ্ধার করি এবং তার পাষণ্ড পিতাকে আটক করি। মেয়েটির বসয় ১৬ বছর। আকটকৃত পিতাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here