Saturday, July 13, 2024

রাজবাড়ীতে প্রবাসী আকবর খানের পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টারঃ  রাজবাড়ীতে ঈদুল আযহার পরের দিন রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ দেলোয়ার শেখের ওপর হামলাকে কেন্দ্র করে আকবর খানের পরিবারের সদস্যরা নিজেদের নির্দোষ দাবী করে ও নিজেদের নিরাপত্তা চেয়ে ২০জুন বিকেলে রাজবাড়ী সজ্জনকান্দা ৪ নং ওয়ার্ডের বাড়ীতে খান পরিবারের ব্যানারে হামলা মামলা ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন । সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রবাসী আকবর খানের মেয়ে সুরাইয়া বিনতে আকবর, ভাইয়ের স্ত্রী মৌশুমী আকতার । এ সময় ড্রাইভার মুরাদ ও স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন ।

আরোও জানুন:  https://rajbarijournal.com

সংবাদ সম্মেলনে আকবর খানের ভাইয়ের স্ত্রী মোসাম্মৎ মৌসুমী আক্তার বলেন, ঈদের পরদিন রাতে যে ঘটনা ঘটেছে দু পক্ষের মধ্যেই হতাহতের ঘটনা ঘটে। আমাদের মধ্যে কোন মারামারির প্রস্তুতি ছিলনা। ওই ঘটনায় আমাদের পরিবারের তিনজন আহত হয়। পরদিন আমি বাড়ী থেকে বের হলে আমার উপর হামলা চালানো হয়। দেলোয়ার চেয়ারম্যানের লোকজন আমাদের উপর হামলা চালায়। গাড়ী ভাংচুর করে। আমি সেখান থেকে কোন রকমে প্রাণে বেঁচে যাই ।
এ বিষয়ে মৌসুমী আক্তার বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর থানায়া একটি অভিযোগ করেছেন বলে জানান ।

সংবাদ সম্মেলনে আকবর খানের মেয়ে সুরাইয়া বিনতে আকবর বলেন, বলেন ঈদের পরের দিন আমার বাবাকে পরিকল্পিতভাবে মোবাইল ফোনে হুমকি দিয়ে দাদশী ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার শেখের ছোট ভাই হাসান সেখ আমার বাবাকে পরিকল্পিতভাবে ডেকে নিয়ে যান সিংগা নিজাতপুর বাজারে সেখানে এক পর্যায়ে কথা কাটাকাটির মধ্যে দাদশী ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার শেখের ছোট ভাই হাসান শেখ আমার বাবাকে হত্যার উদ্দেশ্যে পেটের মধ্যে চাকু ঢুকিয়ে দিতে গেলে সেখানে থাকা রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান নাহিদুল আলম রাজু সেই চাকুর আঘাত ঠেকাইতে গেলে তারও হাত কেটে যায় বলে আকবর খানের মেয়ে সুমাইয়া বিন আক্তার সংবাদ সম্মেলনে জানান ।

আকবর খান এর মেয়ে আরো বলেন, আমার বাবাকে পরিকল্পিতভাবে ডেকে নিয়ে সাজানো মিথ্যা বানোয়াট মামলায় ফাঁসানো হয়েছে বলে উল্লেখ করেন সংবাদ সম্মেলনে । দেলোয়ার চেয়ারম্যানের লোকের হামলায় আমার চাচা মোহাম্মদ লুৎফর খান , আমার চাচাতো ভাই মোহাম্মদ শাহরুখ খান , চাচাতো ছোট ভাই মোহাম্মদ শাওন খান মাথায় কোপ লেগে আহত হন , আমার ভাই ও চাচাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করতে গেলে চেয়ারম্যানের লোকের বাধার মুখে ভর্তি করতে না পারায় গোয়ালন্দ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, এখন তারা গোয়ালন্দ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান।

সুমাইয়া আরো বলেন ,আমরা এখন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি । তিনি তার বাবার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহারেরও দাবি জানান । ‘

উল্লেখ্য, গত ১৮ই জুন রাত সারে ১১টার দিকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার শেখ সহ পরিবারের ৭জনে উপর হামলা চালানো হয় । এ ঘটনায় দেলোয়ার চেয়ারম্যান সহ তার ভাই ,চাচাত বোন ঢাকা মেডিক্যাল হাঁসপাতালে চিকিৎসাধীন । দেলোয়ার শেখের পরিবারের দাবী আকবর খান পরিকল্পিতভাবে দেলোয়ার চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের উপর হামলা চালায়। এ ঘটনায় দেলোয়ার শেখ চেয়ারম্যান এর বাবা কুদ্দুস শেখ বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। রাজবাড়ী সদর থানার মামলা নং -২৮ ।

অন্যদিকে একইদিন দাদশী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে দাদশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার শেখ সহ পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়ে মানববন্ধন করেছেন দাদশী ইউনিয়ন বাসী। এ সময় তারা আকবর খানকে সন্ত্রাসী উল্লেখ করে অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী জানান।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here