Sunday, May 19, 2024

শ্রমিক লীগ নেতার গলায় ফাঁস নেওয়া অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

এস,এম রাহাত হোসেন ফারুকঃ বাড়ির পাশের গাব গাছে মিলল শ্রমিক লীগ নেতার গলায় ফাঁস নেওয়া অবস্থায়, ঝুলন্ত মরদেহ।

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে নরেশ চন্দ্র বিশ্বাস (৫৪) নামে এক শ্রমিক লীগ নেতা ও মোটরসাইকেল মেকারের গলায় ফাঁস নেয়া অবস্থায় ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

(২২ এপ্রিল) সোমবার সকালে বালিয়াকান্দি সদর ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া গ্রামের নিজ বাড়ির পাশের একটি গাব গাছ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে পরিবারের সদস্যরা।

নরেশ চন্দ্র বিশ্বাস বালিয়াকান্দি উপজেলা শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। তিনি বালিয়াকান্দি কলেজ এলাকায় নিজ দোকানে মোটরসাইকেল মেকানিকের কাজ করতেন।

নরেশ চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে নিরুপম বিশ্বাস বলেন, প্রতিদিনের মতো সোমবার ভোর ৫ টার দিকে আমার বাবা হাঁটতে বের হন। সকাল পৌনে ৬ টার দিকে আমার মা বাড়ি থেকে পাকা রাস্তার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে প্রতিবেশী নিহার রঞ্জনের জমির ওপর গাব গাছের ডালের সঙ্গে পুরাতন শাড়ির কিছু অংশ দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় আমার বাবাকে দেখতে পান। মায়ের চিৎকার শুনে আমিসহ স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে বাবার মরদেহ উদ্ধার করে,বালিয়াকান্দি হাসপাতালে নিয়ে যাই।কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, আমার বাবা দীর্ঘদিন ধরে আমাদের বাড়ি যাতায়াতের জন্য একটি রাস্তা নির্মাণ করার চেষ্টা করছিলেন। তবে প্রতিবেশীরা রাস্তার জন্য জমি দিতে রাজী হচ্ছিল না। বাবা এ বিষয় নিয়ে মানসিকভাবে খুব বিপর্যস্ত ছিলেন। আমাদের ধারণা, রাস্তা করতে না পারার কষ্টে বাবা গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন বলেন, প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, বাড়ির পাশের একটি দাগে নরেশ চন্দ্র বিশ্বাসসহ তার ৪-৫ জন প্রতিবেশীর জমি রয়েছে। তবে জমিটি বণ্টননামা করা নেই। ওই জমির ওপর দিয়ে নরেশ চন্দ্র বিশ্বাসের বাড়ি যাতায়াতের পায়ে হাঁটার রাস্তা ছিল। তিনি পায়ে হাঁটার রাস্তায় মাটি ফেলে চলাচলের উপযোগী ভালো রাস্তা নির্মাণের চেষ্টা করছিলেন। রোববার তিনি ভেকু দিয়ে মাটি কাটতে গেলে অন্য জমির মালিকরা বাঁধা দেন এবং কটু কথা বলেন। এ বিষয়টি নিয়ে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। নিজের স্ত্রীর কাছেও তিনি রাস্তা না করতে পারার হতাশার কথা ব্যক্ত করেন। অবশেষে তিনি হতাশা থেকে সোমবার ভোরে বাড়ির পাশে গাব গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

এক প্রশ্নের উত্তরে ওসি বলে, নিহতের স্ত্রী জানিয়েছেন যে শাড়ির কাপড় দিয়ে ঝুলেছিলেন নরেশ চন্দ্র সে শাড়ির কাপড় আমাদের না। তবে এ শাড়ির কাপড় কার এবং কোথা থেকে এসেছে সেটাও আমরা তদন্ত করে দেখব।

ওসি আরও বলেন, নরেশ চন্দ্র বিশ্বাসের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নরেশ চন্দ্র বিশ্বাসের ছেলে নিরুপম বিশ্বাস বালিয়াকান্দি থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেছেন। মামলা নং-০৮ ।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here