Thursday, April 18, 2024

স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা – পলাতক স্বামী গ্রেফতার

রাজবাড়ী জার্নাল নিউজ ডেস্কঃ  স্ত্রীকে জবাই করে হত্যা’র পর দীর্ঘদিন ছদ্মবেশে পালিয়েছিলো স্বামী আব্দুল লতিফ কাজী(৩৫) । দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পর কুষ্টিয়া থেকে গ্রেফতার করেছে রাজবাড়ী থানা পুলিশ ।

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বানীবহ ইউনিয়নের মহিষ বাথান গ্রামের বিল্লাল মোল্লার মেয়ে স্ত্রী বিউটি বেগমকে গত ১৯শে জানুয়ারি (বৃহস্পতি বার) রাত পৌনে দুইটার দিকে পারিবারিক বিষয় নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগরা হওয়ার এক পর্যায়ে স্বামী আব্দুল লতিফ কাজী(৩৫) তার স্ত্রী বিউটি বেগম (৩০)কে ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গলা কেটে গুরুতর জখম করে এবং ঘটনাস্থলেই তার স্ত্রী মারা যায়। এর পর থেকেই তার স্বামী পলাতক ছিলো ।

২৩ মার্চ (বৃহস্পতিবার) দিবাগত রাত ১১ টার দিকে কুষ্টিয়া রেলওয়ে স্টেশন থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ বলছে, স্ত্রীকে হত্যার পর পাগলের ছদ্মবেশ ধারণ করে কুষ্টিয়া রেলওয়ে স্টেশন থাকতেন তিনি। লতিফ ও বিউটি দম্পতির পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া এক মেয়ে ও চার বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে।

নিহত বিউটি বেগমের মেয়ে মিম জানায় , গত ১৮ জানুয়ারি (বুধবার) রাত ৮ টার দিকে রাতের খাবার খেয়ে মিম ও তার বাবা, মা ও ছোট ভাই ঘরের এক রুমে ঘুমান। সেও অন্য রুমে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত দুইটার দিকে সে তার মায়ের চিৎকার শুনে ঘুম থেকে ওঠে। পাশের রুমে গিয়ে দেখে তার বাবা তার মাকে চাপাতি দিয়ে কোপাচ্ছেন। এ দৃশ্য দেখে সে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। তখন তার বাবা দৌড়ে পালিয়ে যান।

বিউটির বাবা বিল্লাল মোল্লা জানান, লতিফ স্টক মালের ব্যবসা করতো। সাংসারিক সামান্য কথা কাটাকাটি হলেও লতিফ তার মেয়েকে মারধর করতো। সেদিন রাতে লতিফ তার মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। পরদিন তিনি লতিফকে একমাত্র আসামি করে রাজবাড়ী সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। লতিফ গ্রেফতার হওয়াতে তিনি কিছুটা হলেও স্বস্তি পেয়েছেন।

স্ত্রীকে জবাই করে স্বামী পালাতক -https://rajbarijournal.com/%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a7%80%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%b9%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be-%e0%a6%95%e0%a6%b0%e0%a7%87-%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%bf%e0%a6%af/

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজবাড়ী সদর থানার এসআই মো. আবুল হোসেন বলেন, স্ত্রীকে হত্যার পর লতিফ পাগলের ছদ্মবেশ ধারণ করে কুষ্টিয়া রেলওয়ে স্টেশন থাকতেন। ওই এলাকায় মাঝে মধ্যে রাজমিস্ত্রীর সহযোগীর কাজও করতেন। কোন ঘর বা বাসা ভাড়া নেননি তিনি। দিন-রাত সব সময়ই রেলওয়ে স্টেশনেই থাকতেন। হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই আমরা তাকে গ্রেফতারে চেষ্টায় ছিলাম।

অবশেষে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) দিবাগত রাত ১১ টার দিকে কুষ্টিয়া রেলওয়ে স্টেশন থেকে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। শুক্রবার দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

-ফলো আপ

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here