Saturday, July 13, 2024

 ২সাংবাদিক বেঁধে পেটানোর নির্দেশ দিলেন সাব রেজিষ্ট্রার

বালিয়াকান্দি প্রতিনিধি:  রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে সরকারি রাজস্ব আদায়ের বাইরে
অতিরিক্ত অর্থ গ্রহণের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাওয়ায় ২ সাংবাদিককে বেঁধে পেটানোর হুমকি সহ লাঞ্ছিত করে সাব রেজিষ্ট্রার। এ বিষয়ে সাব-রেজিষ্ট্রার ও সাংবাদিক সোমবার রাতে বালিয়াকান্দি থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

দৈনিক কাল বেলার বালিয়াকান্দি উপজেলা প্রতিনিধি রিয়াদ হোসেন রুবেল ও নিউজ ২৪ এর রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি মিঠুন গোস্বামীকে সোমবার দুপুরে বালিয়াকান্দি সাব-রেজিষ্টারের খাস কামরায় অতিরিক্ত অর্থগ্রহণের বিষয়ে জানতে চাইলে সাব রেজিষ্ট্রার ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। একপর্যায়ে তিনি বলেন, তোর বাপের কাছ থেকে কি অতিরিক্ত টাকা নেয়, কিসের সাংবাদিক। আমি সাংবাদিক, ছাত্রলীগ, যুবলীগ কারো পরোয়া করি না, কর্মচারীদের ডেকে বলে বেঁধে পেটা। একপর্যায়ে দলিল লেখকরা এগিয়ে আসছে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

সাংবাদিক মিঠুন গোস্বামী ও রিয়াদ হোসেন রুবেল বলেন, সাব রেজিষ্ট্রারের অতিরিক্ত অর্থের চাহিদার বিষয়ে গ্রহীতাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাক্ষাতকার নিতে সাব রেজিষ্টারের কার্যালয়ে যান। এসময় সাংবাদিক পরিচয় দিতেই সাব- রেজিস্টার আমীর হোসেন রেখে বলতে থাকেন, আমি সাংবাদিক, ছাত্রলীগ, যুবলীগ কাউকে পরোয়া করি না। অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার কথা বললে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন, তোর বাপের কাছ থেকে টাকা নেই, এর প্রতিবাদ করলে পিয়ন অধির বিশ^াসকে ডেকে বলেন, এ দুজনকে দরজা আটকিয়ে বেঁধে পেটাও। এরা কিসের সাংবাদিক দেখে নেব। তার এ অশোভনীয় আচরণ আমাদেরকে আহত করেছে। আমরা এ ধরণের আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এ বিষয়ে মিঠুন গোস্বামী বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করার বিষয়টি স্বীকার করেন।

সাব রেজিষ্টার আমীর হোসেন সাংবাদিকদের বেঁেধে পেটানোর কথা স্বীকার করে বলেন, ছাত্রলীগ, যুবলীগ সহ বিভিন্ন পরিচয়ে মাঝে মাঝেই কিছু লোক এসে টাকা দাবী করেন। বিষয়টা অতোটা বুঝতে পারিনি। তবে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

বালিয়াকান্দি থানার ওসি মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, পৃথক দু’টি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ঘটনায় সাংবাদিকদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সুষ্টু তদন্ত সাপেক্ষে সাব রেজিষ্ট্রারের বিচার দাবী করেছেন।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here