Monday, February 6, 2023

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কাবাডির শিরোপা অক্ষুন্ন রাখল বাংলাদেশ

ঢাকাঃ বঙ্গবন্ধু কাপ ২য় আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্টের শিরোপা অক্ষুন্ন রাখল বাংলাদেশ। আজ শহীদ নূর হোসেন ভলিবল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের ফাইনালে কেনিয়াকে দুটি লোনাহসহ ৩৪-৩১ পয়েন্টে হারিয়ে শিরোপা ধরে রেখেছে  কোচ সাজুরামের শিষ্যরা। ম্যাচের প্রথমার্ধে একটি লোনাসহ ১৭-১৪ পয়েন্টে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরা। প্রথম আসরেও এই কেনিয়াকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল লাল সবুজের দলটি।

বাংলাদেশের লড়াইটা ছিল টেকনিক, আর কেনিয়ার শারিরিক সক্ষমতার। শারীরিক শক্তি এবং উচ্চতায় এগিয়ে থাকায় কেনিয়ার খেলোয়াড়দের আটকাতে গিয়ে বারবার খেই হারাতে হয়েছে তুহিন তরফদার-আরদুজ্জামান মুন্সিদের। আবার পয়েন্ট ছিনিয়ে আনতে গিয়ে রবিউল, জাকির, ফেরদৌসরা নিজেদের কোর্টে আসতে পারেননি প্রতিপক্ষের দুর্দান্ত ডিফেন্সের কারণে। যে কারণে পাওয়ারফুল কেনিয়াকে থামানোর জন্য কৌশলে পরিবর্তন আনেন কোচ সাজুরাম।

প্রতিপক্ষকে আটকানোর ঝুঁকিতে না গিয়ে পয়েন্ট সংগ্রহে মনোযোগ দেয় স্বাগতিকরা। এতে সফলও হয়। শুরুতে বেশ কিছু সময় ধরে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ প্রথমার্ধের শেষ দিকে ছন্দে ফিরে। দলকে লিড এনে দেন তুহিন তরফদার। এরপর প্রথমাবের মতো কেনিয়ার সেরা রেইডার ভিক্টরকে আটকে উজ্জীবিত হয়ে উঠে বাংলাদেশ। পয়েন্ট ছিনিয়ে এনে কেনিয়ার খেলোয়াড়দের আউট করতে থাকেন রাজিব-জাকিররা। এই অর্ধে কেনিয়াকে অলআউট করে বাংলাদেশ পায় প্রথম লোনা। ১৭-১৪ পয়েন্টে এগিয়ে থাকায় আতœবিশ্বাসও বেড়ে যায়।

কিন্তু বিরতির পর শুরুতে ভুল করেন ফেরদৌস। প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়কে আটকাতে গিয়ে উল্টো পয়েন্ট উপহার দিয়ে বসেন তিনি। এক পর্যায়ে রাজিব ও সবুজ আউট হলে লিড নিয়ে কেনিয়ার পয়েন্ট দাঁড়ায় ১৮-১৭। তিনজনে পরিনত হওয়া বাংলাদেশের অলআউটের শংকা জাগে। পরক্ষনেই কেনিয়ার ভিক্টরকে আউট করলে সমতা আনে লাল সবুজের দলটি। কিন্তু মুনিরুলের ভুলে আবারও লিড নেয় আফ্রিকান দেশটি। পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান রাজিব আহমেদ। একাই কেনিয়ার দুই খেলোয়াড়কে আউট করে মূল্যবান দুটি পয়েন্ট এনে দেন তিনি।
এটাই ছিল মূলত ম্যাচের অন্যতম টার্নিং পয়েন্ট। পাঁচ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। দারুণ খেলতে থাকা স্বাগতিকরা ব্যবধান নিয়ে যায় কেনিয়ার ধরাছোয়ার বাইরে (২৯-২১)। একে একে কেনিয়ার ওদিয়াম্বো, নামাবকে আউট করলে পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়ায় ৩০-২৩। এমন অবস্থায় বাংলাদেশের জয়টি সময়ের ব্যাপারই মনে হচ্ছিল।

কিন্তু বারবার ভুল করেন তুহিন-মুন্সিরা। তাতে পয়েন্টের ব্যবধান কমিয়ে আনে কেনিয়া (৩২-৩১)। ম্যাচের শেষ মিনিটে কেনিয়ার নাম্বার ওয়ান ভিক্টর ভুল করলে দুই পয়েন্ট যোগ করে শিরোপা জয়ের আনন্দে মেতে উঠে বাংলাদেশ।
খেলা শেষে বাংলাদেশের কোচ  সাজুরাম গয়াত বলেন,‘ ছেলেরা আজ টুর্নামেন্টের সেরাটা খেলেছে। আমার পরিকল্পনা শতভাগ তারা বাস্তবায়ন করেছে। টুর্নামেন্টে আমাদের যে লক্ষ্য ছিল শিরোপা জয়ের মাধ্যমে সেটা আমরা করতে পেরেছি। এবার আমাদের লক্ষ্য এশিয়ান গেমস।’

কেনিয়ার কোচ ল্যাভেন্ডার ওগুতা ম্যাচশেষে বলেন, ‘আমার ছেলেরা পুরো টুর্নামেন্টেই ভালো খেলেছে। আমার পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলেছে। আজ যে খারাপ খেলেছে এমন নয়। তবে আজ তারা অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী ছিল।’
ম্যাচে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশের রাজিব আহমেদ। তার হাতেই উঠেছে টুর্নামেন্ট সেরার পুরস্কারও। সেরা রেইডার হয়েছেন কেনিয়ার ভিক্টর ওবিয়েরো এবং সেরা ক্যাচার হয়েছেন তুহিন তরফতার।

ফাইনাল শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল।  কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি ও র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া সচিব মেজবাহ উদ্দিন, পৃষ্ঠপোষক র‌্যাংগস লিমিটেডর বিভাগীয় পরিচালক শোয়েব আহমেদ, আন্তর্জাতিক কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ইয়েং হাক উন, এশিয়ান কাবাডি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সারোয়ার, প্রো কাবাডির টেকনিক্যাল ডিরেক্টর ই প্রসাদ রাও, কাবাডি ফেডারেশনের সহসভাপতি মো. আবদুস সালাম আজাদ, হাফিজুর রহমান খান ও শাহিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এবং যুগ্ম সম্পাদক ও অতিরিক্ত ডিআইজি গাজী মো. মোজাম্মেল হক।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here