Thursday, April 18, 2024

রাজবাড়ীতে প্রান গেলো মোটরসাইকেল আরোহী দুই বন্ধুর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ী সদর উপজেলার কামালদিয়া-পাচুরিয়া সড়কের শান্তিনগর ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈদ্যুতিক পুলের সাথে ধাক্কা লেগে দুই বন্ধু নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১২ই মার্চ) ভোরে দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলার আলিপুর ইউনিয়নের ইন্দ্রনারায়নপুর গ্রামের আব্দুর রব মন্ডলের ছেলে সোহাগ (১৬) ও লালন শেখের ছেলে রাজন শেখ (১৮)।

নিহতের চাচা আলিপুর ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ সদস্য আব্দুল আলিম বলেন, ‘ আনুমানিক ৬টার রাজন বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে সোহাগের সাথে বের হয় , বাড়ি ফেরার সময় রাস্তার পাশে বৈদ্যুতিক পুলের সাথে ধাক্কা লেগে মারা গেছেন।

নিহত রাজন শেখের বাবা লালন শেখ বলেন, আমি ঢাকায় কোম্পানির গাড়ী চালাই। আমার ছেলে আলীপুর উচ্চবিদ্যালয়ে পড়ে। সামনের বছর এসএসসি পরীক্ষা দেবে। মোটরসাইকেল কিনে না দেওয়ায় সে আত্নহত্যা করতে গিয়েছিলো । পরে কিস্তিতে একটি মোটরসাইকেল কিনে দেই । তানা হলে সে স্কুলে যাবে না । আজকে সেই মোটরসাইকেল দিয়ে সে মারা গেলো ,আমি ছেলে কোথায় পাবো। আমার মত কেউ যেন ছোট ছেলেদের হাতে মোটরসাইকেল কিনে না দেয় ।

নিহত সোহাগের বাবা আব্দুর রব মন্ডল বলেন, আমার ছেলে একটি মোটরসাইকেল গ্যারেজে কাজ করে । গতবছর ছেলের মা মারা গেছে। ছেলেটাকে নিয়ে রাজন ভোরে বের হয় মোটরসাইকেল নিয়ে , আর ফিরে লাশ হয়ে। আমি এ শোক কিভাবে সইব ভাষা হারিয়ে ফেলেছি ।

আলিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, নিহত দুইজনের একজনের বাড়ী আলীপুর ইউনিয়নে আর অন্যজনের বাড়ী দাদশী ইউনিয়নে।

চারদিন আগে রাজন মোটরসাইকেল না কিনে দিলে আত্মহত্যা করবেন বলে গলায় ফাঁস নিতে যায়। এরপর তার বাবা-মা কিস্তিতে মোটরসাইকেল কিনে দেয়। সকালে তারা মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মারা গেছে। লাশ হাঁসপাতালে রয়েছে, আমরা সদর থানায় এসেছি , প্রক্রিয়া শেষ করে দাফনের ব্যাবস্থা করবো ।

তিনি আরোও বলেন, কিশোর ছেলেদের হাতে মোটরসাইকেল দেওয়া ঠিক নয়, কিন্তু ছেলেটির অত্যাচারে তার বাবা মোটরসাইকেল কিনে দিতে বাধ্য হয়।

সর্বশেষ পোষ্ট

এই ধরনের আরো সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here